নতুন আরও ৩৭ হাইস্কুল জাতীয়করণ হচ্ছে

0 76

নতুন করে আরও ৩৭টি উপজেলার হাইস্কুল জাতীয়করণ করা হবে। এসব স্কুল জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন। একই সঙ্গে নতুন করে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও সম্পত্তি হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা অধিদফতরকে (মাউশি) নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত নির্দেশনার চিঠি মাউশিতে পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ সাজ্জাদুল হাসান স্বাক্ষরিত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, ৩৭টি হাইস্কুল জাতীয়করণ করতে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন।

স্কুলগুলো হলো, মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বানিয়াজুরী ইউনিয়ন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার শহীদ আসাদ কলেজিয়েট বালিকা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার সখীপুর পিএম পাইলট মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কক্সবাজার পেকুপা উপজেলার পেকুয়া মডেল জিএসসি ইনস্টিটিউশন, ফেনীর পরশুরাম উপজেলার পরশুরাম মডেল পাইলট হাইস্কুল, কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার চান্দিনা মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, নালঙ্গকোট উপজেলার নাঙ্গলকোট এআর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, তিতাস উপজেলার গাজীপুর খান মডেল বহুমুখী হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ, মনোহরগঞ্জ উপজেলার মনোহরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার শাহারাস্তি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দেবগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, বিজয়নগর উপজেলার দাউদপুর উচ্চ বিদ্যালয়, লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, কমলনগর উপজেলার হাজীরহাট মিল্লাত একাডেমী, সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার মঙ্গচণ্ডী নিশিকান্ত মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা উচ্চ বিদ্যালয়, বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার দুপচাঁচিয়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার শাহজাদপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার শাহজাদপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া উপজেলার তেতুঁলিয়া পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, খুলনার তেরখাদা উপজেলার ইখড়ি কাটেংগা ফজলুল হক মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাগেরহাটের মোল্লারহাট উপজেলার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, যশোরের চৌগাছা উপজেলার চৌগাছা শাহাদাৎ পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঝিকরগাছার ঝিকরগাছা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কেশবপুর উপজেলার কেশবপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শার্শা উপজেলার শার্শা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার দৌলতপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার কোটচাঁদপুর মডেল পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মহেশপুর উপজেলার মহেশপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার মুজিবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার জীবননগর থানা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাকেরগঞ্জ উপজেলার বাখেরগঞ্জ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গৌরনদী উপজেলার গৌরনদী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরগুনার তালতলী উপজেলার তালতলী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পটুয়াখালীর রাঙ্গবালী উপজেলার মৌডুবী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নাটোরের লালপুর উপজেলার করিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়।

মাউশিকে দেয়া নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি স্কুল-কলেজবিহীন উপজেলায় একটি করে স্কুল ও কলেজ জাতীয়করণের ধারাবাহিকতায় ৩৭টি স্কুল জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিপ্রাপ্ত ৩৭টি স্কুল দ্রুত পরিদর্শন করে সুস্পষ্ট মতামতসহ বিস্তারিত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে হবে। একই সঙ্গে এসব স্কুলে সব ধরনের নিয়োগ, পদোন্নতি ও স্থাবর-অস্থাবর সম্মতি হস্তান্তরে দ্রুত নিষেধাজ্ঞা জারি করতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান বলেন, স্কুলগুলো দ্রুত পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠাব। শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও স্থাবর-অস্থাবর সম্মতি হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করব।

নতুন করে আরও ৩৭টি উপজেলার হাইস্কুল জাতীয়করণ করা হবে। এসব স্কুল জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন। একই সঙ্গে নতুন করে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও সম্পত্তি হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে মাধ্যমিক উচ্চশিক্ষা অধিদফতরকে (মাউশি) নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। মঙ্গলবার এ সংক্রান্ত নির্দেশনার চিঠি মাউশিতে পাঠানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ সাজ্জাদুল হাসান স্বাক্ষরিত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়েছে, ৩৭টি হাইস্কুল জাতীয়করণ করতে প্রধানমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন।

স্কুলগুলো হলো, মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার বানিয়াজুরী ইউনিয়ন স্কুল অ্যান্ড কলেজ, নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার শহীদ আসাদ কলেজিয়েট বালিকা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার সখীপুর পিএম পাইলট মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, কক্সবাজার পেকুপা উপজেলার পেকুয়া মডেল জিএসসি ইনস্টিটিউশন, ফেনীর পরশুরাম উপজেলার পরশুরাম মডেল পাইলট হাইস্কুল, কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার চান্দিনা মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, নালঙ্গকোট উপজেলার নাঙ্গলকোট এআর মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, তিতাস উপজেলার গাজীপুর খান মডেল বহুমুখী হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ, মনোহরগঞ্জ উপজেলার মনোহরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়, চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার শাহারাস্তি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার দেবগ্রাম পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, বিজয়নগর উপজেলার দাউদপুর উচ্চ বিদ্যালয়, লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার আলেকজান্ডার মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, কমলনগর উপজেলার হাজীরহাট মিল্লাত একাডেমী, সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার মঙ্গচণ্ডী নিশিকান্ত মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা উচ্চ বিদ্যালয়, বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার দুপচাঁচিয়া মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার শাহজাদপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার শাহজাদপুর মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, পঞ্চগড়ের তেতুঁলিয়া উপজেলার তেতুঁলিয়া পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, খুলনার তেরখাদা উপজেলার ইখড়ি কাটেংগা ফজলুল হক মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাগেরহাটের মোল্লারহাট উপজেলার ওয়াজেদ মেমোরিয়াল মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, যশোরের চৌগাছা উপজেলার চৌগাছা শাহাদাৎ পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঝিকরগাছার ঝিকরগাছা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কেশবপুর উপজেলার কেশবপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, শার্শা উপজেলার শার্শা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার দৌলতপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার কোটচাঁদপুর মডেল পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মহেশপুর উপজেলার মহেশপুর পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মেহেরপুরের মুজিবনগর উপজেলার মুজিবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার জীবননগর থানা পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বাকেরগঞ্জ উপজেলার বাখেরগঞ্জ বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, গৌরনদী উপজেলার গৌরনদী পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বরগুনার তালতলী উপজেলার তালতলী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়, পটুয়াখালীর রাঙ্গবালী উপজেলার মৌডুবী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নাটোরের লালপুর উপজেলার করিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়।

মাউশিকে দেয়া নির্দেশনায় বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী সরকারি স্কুল-কলেজবিহীন উপজেলায় একটি করে স্কুল ও কলেজ জাতীয়করণের ধারাবাহিকতায় ৩৭টি স্কুল জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিপ্রাপ্ত ৩৭টি স্কুল দ্রুত পরিদর্শন করে সুস্পষ্ট মতামতসহ বিস্তারিত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে পাঠাতে হবে। একই সঙ্গে এসব স্কুলে সব ধরনের নিয়োগ, পদোন্নতি ও স্থাবর-অস্থাবর সম্মতি হস্তান্তরে দ্রুত নিষেধাজ্ঞা জারি করতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান বলেন, স্কুলগুলো দ্রুত পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠাব। শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ, পদোন্নতি ও স্থাবর-অস্থাবর সম্মতি হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা জারি করব।

মন্তব্য
Loading...